ডিস্ক হার্নিয়েশন বা পিএলআইডি জনিত কোমড় ব্যথায় আক্রান্ত রোগীদের জন্য প্রচলিত চিকিৎসা পদ্ধতিগুলোর মধ্যে ফিজিওথেরাপি হচ্ছে অন্যতম এবং এএসপিসি ম্যানিপুলেশন সেন্টারে এই রোগের চিকিৎসায় ফিজিওথেরাপী বিষয়ক সর্বাঙ্গীণ চিকিৎসা প্রদান করা হয়ে থাকে। এখানে এক্সারসাইজ থেরাপির মাধ্যমে কোমরের পেশীগুলিকে শক্তিশালী করা হয় এবং মেরুদণ্ডের টিস্যু এবং জয়েন্টগুলির ফাংশন বাড়ানো হয়।

কোমড় ব্যথার জন্য স্বল্প- এবং দীর্ঘমেয়াদী ফিজিওথেরাপী চিকিৎসার উদ্দেশ্যগুলো হচ্ছে কোমড়ের নিচ দিকে এবং পায়ের ব্যথাজনিত উপসর্গগুলি হ্রাস করা, দৈনন্দিন কাজকর্ম করার জন্য করার জন্য কোমড়ের ফাংশন বাড়ানো, মেরুদন্ডের নমনীয়তা, রেঞ্জ অব মোশন উন্নত করা এবং কোমড় ব্যথার পুনরাবৃত্তি রোধ করার জন্য একটি পুনর্বাসন প্রোগ্রাম তৈরি করা। ব্যায়ামগুলি সম্পূর্ণ কাইনেটিক চেইন মেইন্টেইন করে থাকে, যার মধ্যে শরীরের বিভিন্ন অংশ, জয়েন্ট এবং পেশীগুলি শারীরিক মুভমেন্ট করার জন্য একত্রিত হয়ে কাজ করে। ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা পদ্ধতি রূগীদের কোনও অস্বস্তি ছাড়াই দৈনন্দিন কাজকর্ম সম্পাদন করার ক্ষমতা পুনরুদ্ধার করতে সহায়তা করে। গবেষণায় দেখা গেছে যে ফিজিওথেরাপি কোমড় ব্যথা এবং অন্যান্য উপসর্গগুলিতে ৬০% পর্যন্ত উল্লেখযোগ্য উন্নতি ঘটাতে পারে।

এই অনুচ্ছেদটির পড়ার মাধ্যমে আমরা কোমড় ব্যথার ব্যায়ামগুলো সম্পর্কে একটি পূর্ণাঙ্গ ধারণা পেতে পারি। আমরা কোমড় ব্যথা সাড়িয়ে তোলার জন্য একটি নিরাপদ এবং কার্যকর ব্যায়ামের রুটিন তৈরী করা থেকে শুরু করে, ধাপে ধাপে ব্যায়াম শুরু করার জন্য নির্দেশিকা প্রদান করি। আমাদের লক্ষ্য বিজ্ঞানসম্মত  ফিজিওথেরাপী চিকিৎসা প্রদানের মাধ্যমে রোগীদের সর্বোত্তম স্বাস্থ্যগত এবং সুস্থতা অর্জন করা।

Contents hide
4 প্রায়শই জিজ্ঞাসিত প্রশ্নাবলী

আমাদের লক্ষ্য এবং উদ্দেশ্য

ডিস্ক প্রোল্যাপ্স বা ডিস্ক হার্নিয়েশনজনিত কোমড় ব্যথার জন্য ফিজিওথেরাপি চিকিৎসার লক্ষ্য হচ্ছে রোগীদের ডিস্ক প্রোল্যাপ্সের লক্ষণের মাত্রার উপর নির্ভর করে তাদের সুনির্দিষ্ট চিকিৎসা প্রদান করা। এখানে ‘এএসপিসি ম্যানিপুলেশন সেন্টারে’ ডিস্ক হার্নিয়েশনজনিত কোমড় ব্যথায় ফিজিওথেরাপি চিকিৎসার লক্ষ্য এবং উদ্দেশ্য উল্লেখ করা হলো:

ব্যথা উপশম: ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা পদ্ধতিতে বিভিন্ন টেকনিক এবং ব্যায়াম অন্তর্ভুক্ত থাকে যা ডিস্ক হার্নিয়েশনজনিত ব্যথা উপশম করতে সাহায্য করে। ব্যথা এবং প্রদাহ কমাতে বরফ, তাপ, বা ইলেক্ট্রিক স্টিমুলেশন ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

রেঞ্জ অব মোশন এবং মুভমেন্ট বাড়ানো: ডিস্ক হার্নিয়েশন এর জন্য কোমড়ের নড়াচড়া এবং মুভমেন্ট এর রেঞ্জ বাধাগ্রস্ত হয়। ফিজিওথেরাপির লক্ষ্য বিভিন্ন ব্যায়াম এবং স্ট্রেচিং এক্সারসাইজ এর মাধ্যমে মেরুদণ্ডের স্বাভাবিক নড়াচড়া এবং রেঞ্জ অব মোশান পুনরুদ্ধার করা।

পেশীর শক্তি বাড়ানো: ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা কোমড়ের এবং কোর মাসল শক্তিশালী করতে সাহায্য করে, যা মেরুদণ্ডকে রক্ষা করে এবং ভবিষ্যতে আঘাতের ঝুঁকি কমিয়ে থাকে।

শারীরিক ভঙ্গি উন্নত করুন: এলোমালো পজিশনে বসা, দাঁড়ানো কিংবা কাজকর্মের বিকৃত পজিশন বা ভঙ্গি অনেকাংশেই কোমড় ব্যথার জন্য দায়ী এবং ইহা ডিস্ক হার্নিয়েশনের ঝুকি বাড়িয়ে দেয়। ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা পদ্ধতি আমাদের সঠিকভাবে কাজকর্ম করার শারীরিক পজিশন বা পশ্চার উন্নত করতে এবং মেরুদণ্ডের সঠিক ক্রমবিন্যাস মেইনটেইন এবং উন্নীত করতে সাহায্য করে থাকে।

পুনরায় ডিস্ক প্রোল্যাপ্স হবার ঝুকি রোধ করন: এ এস পিসি তে ফিজিওথেরাপি চিকিৎসার ক্ষেত্রে ডিস্ক প্রোল্যাপ্স রোগীদের জন্য একটি ব্যায়াম এর রুটিন তৈরী করে দেয়া হয় যা রোগীরা নিজে নিজে বাসায় করতে পারে এবং এতে করে পুনরায় পিএলআইডি হবার ঝুকি অনেকাংশে কমে যায়।

সামগ্রিকভাবে, আমাদের লক্ষ্য হল পিএলাইডি বা ডিস্ক প্রোল্যাপ্সজনিত কোমড় ব্যথায় আক্রান্ত রোগীদের তাদের কার্যকরী ক্ষমতা ফিরে পেতে এবং তাদের জীবনযাত্রার মান উন্নত করতে সাহায্য করা।

এএসপিসি ম্যানিপুলেশন সেন্টারে আমাদের ফিজিওথেরাপি বিশেষজ্ঞরা প্রথমে আপনার রোগের বিবরণ নিবেন এবং রোগ নির্ণয়ের জন্য এসেসমেন্ট করবেন এবং একটি চিকিৎসা পরিকল্পনা তৈরি করবেন।

  • এএসপিসি ম্যানিপুলেশন সেন্টারের ডাক্তাররা আপনার কোমড় ব্যথা সম্পর্কে প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করবেন, এটি কখন এবং কীভাবে শুরু হয়েছে, সেইসাথে যে কোনও আঘাতজনিত কারন রয়েছে কিনা।
  • আপনাকে ব্যথার ধরণ, ব্যথার স্থান এবং যে কাজে ব্যথা বাড়ে এবং কমে তা বর্ণনা করতে বলা হবে।
  • ডিস্ক হার্নিয়েশনের সাথে যুক্ত অন্যান্য রোগ সম্পর্কেও আলোচনা করা হবে।
  • আপনার দৈনন্দিন কাজকর্ম পদ্ধতি ইভ্যালুয়েট করা হবে যাতে করে এর সাথে কোমড়ের ডিস্ক এ চাপ সৃষ্টি করে এমন কিছু জড়িত আছে কিনা সেটা নির্ণয় করা যায়।
  • পূর্ববর্তী যেসকল ওষুধ খেয়েছেন এবং যেসকল চিকিৎসা নিয়েছেন সেটা সম্পর্কেও আলোচনা করা হবে।
  • যদি পরিবারের কোনো সদস্যের ডিস্ক প্রোল্যাপসজনিত কোমড়ব্যথার ইতিহাস থাকে, তবে অন্য সদস্যদের ক্ষেত্রেও কোমড় ব্যথা হবার সম্ভাবনা বাড়ায়।
  • অনেকক্ষেত্রেই দেখা যায় কোমড় ব্যথার রোগীরা উদ্বেগ ও বিষন্নতায় ভুগেন, এক্ষেত্রে রুগিদের কাউন্সিলিং করা হয়ে থাকে যাতে করে রোগী উপকৃত হয়।
  • সংগৃহীত সকল তথ্যের ভিত্তিতে একটি পূর্ণাঙ্গ চিকিৎসা পরিকল্পনা তৈরী করা হয় যা আপনার কোমড় ব্যথা উপশম করতে সাহায্য করবে।

আরও পড়ুনঃ ডিস্ক প্রলাপ্স কী? কীভাবে বুঝবেন আপনার ডিস্ক প্রলাপ্স হয়েছে?

শারীরিক পরীক্ষানিরীক্ষা:

. স্নায়বিক চিহ্ন বা লক্ষণ পরীক্ষা করা

আমাদের বিশেষজ্ঞরা সম্ভাব্য পা ও পায়ের পাতায় অসাড়তা বা দুর্বলতার মতো সংবেদনশীল ক্ষতির লক্ষণ গুলি অনুসন্ধান করেন। যেমন, ফুট ড্রপ পরীক্ষা করার ক্ষেত্রে রোগীকে স্বাভাবিকভাবে হাঁটা, পায়ের পাতার উপর ভড় দিয়ে হাঁটা এবং পায়ের গড়ালীতে ভড় দিয়ে হাটার জন্য বলা হয়। এটি এমন রোগ যার ফলে গোড়ালি এবং পায়ের আঙ্গুলগুলিকে নড়ানোর পেশী দুর্বল হয়ে যায়। আমাদের বিশেষজ্ঞরা শরীরের অন্যান্য অংশের পেশী শক্তি এবং নার্ভ  রিফ্লেক্স পরীক্ষা করেন, যা স্বাভাবিকের চেয়ে কম বা প্রায় অনুপস্থিত হতে পারে।

. রেঞ্জ অব মোশান চেক করা

হার্নিয়েটেড ডিস্কজনিত কোমড় ব্যথার রোগীদের কোমড়ের রেঞ্জ অব মোশান (ROM) চেক করার সময়, আমাদের বিশেষজ্ঞরা বিভিন্ন টেকনিক ব্যবহার করতে পারেন।

এই পদ্ধতিতে অন্তর্ভুক্ত থাকতে পারে:

একটিভ রেঞ্জ অব মোশন: এই পদ্ধতিতে, রোগীকে তাদের কোমড়কে বিভিন্ন দিকে মুভ করতে বলা হয়, যেমন সামনের দিকে ঝোকা, পিছনের দিকে বাকা হওয়া এবং পাশে বাঁকানো। চিকিৎসক রোগীর মুভমেন্ট পর্যবেক্ষণ করেন এবং কোনো মুভমেন্ট বাধাগ্রস্ত বা ব্যথা হলে সেটা নোট করেন। 

প্যাসিভ রেঞ্জ অব মোশন: এই পরীক্ষার সময়, ফিজিওথেরাপিস্ট নিজে রোগীর কোমড় অথবা পা বিভিন্ন দিকে নড়াচড়া করিয়ে থাকেন তবে এক্ষেত্রে রোগী শিথিল থাকবে। এই পরীক্ষাটি রোগীর কোন মুভমেন্টে বাধাগ্রস্ত হওয়া বা ব্যথা সনাক্ত করতে সাহায্য করে থাকে।

রেজিস্টেড রেঞ্জ অব মোশন: এই পরীক্ষায় কোমড়ের পেশীগুলির শক্তি পরীক্ষা করার জন্য বিভিন্ন দিকে কোমড়ের এবং পায়ের নড়াচড়া্র বিরুদ্ধে বাধা প্রদান করা হয়ে থাকে।

. পা সোজা করে উঠিয়ে পরীক্ষা করা

এটি ‘LaSegue’ পরীক্ষা নামেও পরিচিত, এটি একটি সাধারণ টেস্ট যা হার্নিয়েটেড ডিস্কের উপস্থিতি নির্ণয় করতে ব্যবহৃত হয়। এই পরীক্ষার সময়, রোগী চিত হয়ে শুয়ে থাকা অবস্থায় ফিজিওথেরাপি চিকিৎসক রোগীর আক্রান্ত পা আলতোভাবে সোজা করে তুলতে থাকেন রোগী কোন ব্যথা বা টান অনুভব করার আগ পর্যন্ত। যদি ব্যথা ৩০ থেকে ৭০ ডিগ্রির মধ্যে অনুভূত হয়, তাহলে এটি কোমড়ের ডিস্ক প্রোল্যাপ্স এর উপস্থিতি নির্দেশ করে। যদি ভাল পা সোজা করে উঠালেও আক্রান্ত পায়ে ব্যথা বা যন্ত্রণা অনুভূত হয়, তবেও এটি নার্ভরুট এ চাপ লেগে থাকা নির্দেশ করে।

এই পরীক্ষাটি বিভিন্ন অবস্থানে করা যেতে পারে, যেমন বসে থাকা অবস্থা্য বা শোয়া অবস্থায়। হার্নিয়েটেড ডিস্কের উপস্থিতি নির্ণয় এবং সবচেয়ে উপযুক্ত চিকিৎসা পরিকল্পনা নির্ধারণের জন্য উক্ত পরীক্ষাটি একটি মূল্যবান হাতিয়ার।

. হাঁটার ধরণ পর্যবেক্ষণ করা

ASPC ম্যানিপুলেশন সেন্টারে, আমাদের বিশেষজ্ঞগণ  ডিস্ক হার্নিয়েশন রোগীদের হাটার ধরণ খুব ভালভাবে নিরীক্ষণ করে। গেইট প্যাটার্ন বিশ্লেষণ হল একজন ব্যক্তি কীভাবে হাঁটেন তা মূল্যায়ন করার একটি পদ্ধতি, যা তাদের মেরুদণ্ডের পরিস্থিতি সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য প্রদান করতে পারে। যখন একজন রোগীর হার্নিয়েটেড ডিস্ক থাকে, তখন ব্যথার জন্য রোগীদের চলাফেরার ধরণে পরিবর্তন ঘটতে পারে, যেমন পা টেনে হাটা বা এক পায় বেশি ভর দিয়ে হাটা।

একজন রোগীর চলাফেরার ধরণ মনোযোগ সহকারে পর্যবেক্ষণ করে, আমাদের বিশেষজ্ঞরা যেকোন অস্বাভাবিক হাটার ধরণ, পেশীর ভারসাম্যহীনতা বা রোগীর মেরুদন্ডের ব্যথার কারণ হিসেবে কাজ করে এমন অন্যান্য সমস্যা সনাক্ত করতে পারেন।

. আক্রান্ত স্থানে প্যালপেশন করা

আমাদের বিশেষজ্ঞরা ডিস্ক হার্নিয়েশনের রোগীদের কোমড় এবং মেরুদন্ড পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে পরীক্ষা করে থাকেন। এই পরীক্ষার ক্ষেত্রে সাধারণত রোগীর কোমড়ের একটি ফিজিক্যাল এসেসমেন্ট হয়ে থাকে, যার মধ্যে কোন অংশে ফুলে থাকা বা নমনীয়তা সনাক্ত করার জন্য আক্রান্ত স্থানের প্যালপেশন করা হয়।

যেসব ক্ষেত্রে কোমড়ের প্রদাহ থাকে, আক্রান্ত স্থানের ত্বক অস্বাভাবিক দেখাতে পারে, যেমন লালচে হয়ে যাওয়া বা আক্রান্ত স্থান আশেপাশের ত্বকের তুলনায় উষ্ণ। আক্রান্ত স্থানের প্যা্লপেশন এর সময় রোগীর সংবেদনশীলতা বা ব্যথাও হতে পারে।

.  রিফ্লেক্স টেস্টিং

কোমড়ের ডিস্ক হার্নিয়েশনের রোগীদের ক্ষেত্রে, ফিজিওথেরাপিস্টরা প্রায়ই ফিজিক্যাল এসেসমেন্ট এর অংশ হিসেবে রিফ্লেক্স পরীক্ষা করে থাকেন। রিফ্লেক্স টেস্টিংয়ে শরীরের নির্দিষ্ট টেন্ডন বা এলাকায় ট্যাপ করার জন্য রিফ্লেক্স হ্যামার ব্যবহার করা হয়, যা পেশী থেকে রিফ্লেক্সিভ প্রতিক্রিয়া প্রকাশ করে। ফিজিওথেরাপিস্ট রোগীর রিফ্লেক্স পর্যবেক্ষণ করবেন এবং মূল্যায়ন করবেন যে রিফ্লেক্স স্বাভাবিক, স্বাভাবিকের চেয়ে দ্রুত বা হ্রাস পাচ্ছে কিনা।

কোমড়ের ডিস্ক হার্নিয়েশনের ক্ষেত্রে, স্নায়ুর রুটে চাপ লেগে থাকার কারণে রিফ্লেক্স গুলি স্বাভাবিকের চেয়ে ধীর বা অস্তিত্বহীন হতে পারে। ফিজিওথেরাপিস্ট সাধারণত স্নায়ুতন্ত্রের কার্যকারিতা যাচাই করার জন্য প্যাটেলার টেন্ডন (হাঁটু-জার্ক রিফ্লেক্স), অ্যাকিলিস টেন্ডন (গোড়ালি রিফ্লেক্স), এবং বাইসেপস এবং ট্রাইসেপ টেন্ডন (বাহুর প্রতিচ্ছবি) পরীক্ষা করবেন।

. পেশী শক্তি পরীক্ষা করা

পেশী শক্তি পরীক্ষা কোমড়ের হার্নিয়েটেড ডিস্কের রোগীদের ফিজিক্যাল এসেসমেন্ট এর একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। এএসপিসি-এর বিশেষজ্ঞরা কোমড়, নিতম্ব, পা এবং পায়ের পাতার পেশীগুলির শক্তি মূল্যায়ন করবেন, কোমড়ের হার্নিয়েটেড ডিস্ক এর কারণে দুর্বল হয়ে যেতে পারে।

৮. সংবেদনশীলতা

পায়ে সংবেদনশীলতা হ্রাস পাওয়া কোমড়ের মেরুদণ্ডে ডিস্ক হার্নিয়েশনের একটি সাধারণ লক্ষণ। যখন একটি হার্নিয়েটেড ডিস্ক একটি স্নায়ুর রুটে চাপ দেয়, তখন এটি আক্রান্ত পায়ে ঝিনঝিন, ভাড়-ভাড়, অবশ-অবশ লাগতে পারে।

একজন ফিজিওথেরাপিস্ট সংবেদনশীল পরীক্ষার মাধ্যমে ডিস্ক হার্নিয়েশনে আক্রান্ত রোগীর ত্বকের অনুভুতি যাচাই করতে পারেন। এটি সাধারণত বিভিন্ন ধরনের উদ্দীপনা প্রয়োগের মাধ্যমে করা হয়, যেমন আলতোভাবে স্পর্শ করা, ঠান্ডা বা গরম এর অনুভুতি বা সূচালো পিন ফোটানো। আক্রান্ত পায়ে বিভিন্ন সংবেদন প্রদান করার মাধ্যমে ফিজিওথেরাপিস্ট রোগীকে তারা যে ধরনের অনুভুতি পাচ্ছেন তা বর্ণনা করতে বলেন। এটি ফিজিওথেরাপিস্টকে সংবেদনশীলতা ক্ষতির মাত্রা এবং তীব্রতা নির্ধারণ করতে সহায়তা করে।

৯. ইমেজিং পরীক্ষা

ফিজিক্যাল এসেসমেন্ট এর ফলাফলের উপর নির্ভর করে, কোমড়ের ডিস্ক হার্নিয়েশন নির্নয় করতে ইমেজিং পরীক্ষার পরামর্শ দেয়া যেতে পারে। এক্স-রে, এমআরআই, সিটি স্ক্যান, মাইলোগ্রাম এবং ইএমজি হল বিভিন্ন ধরনের ইমেজিং পরীক্ষাসমূহ যা কোমড়ের ডিস্ক হার্নিয়েশন নির্ণয় করতে সাহায্য করে। ইমেজিং পরীক্ষার ধরন রোগীর লক্ষণ এবং রোগের মাত্রা এবং ইতিহাসের উপর নির্ভর করবে।

এক্সরে: এক্স-রে মেরুদণ্ডের হাড়ের ছবি তৈরি করতে বিকিরণ ব্যবহার করে। যদিও এক্সরে সরাসরি  ডিস্ক হার্নিয়েশন দেখাতে পারে না, তারা যেকোন অস্বাভাবিকতা বা হাড়ের অবস্থান সনাক্ত করতে

সাহায্য করতে পারে যা লক্ষণগুলির সাথে জড়িত হতে পারে, যেমন স্পাইনাল স্টেনোসিস বা অস্টিওআর্থ্রাইটিস।

এম আর আই: এম আর আই (ম্যাগনেটিক রেজোন্যান্স ইমেজিং) হল একটি নন-ইনভেসিভ ডায়াগনস্টিক পরীক্ষা যা চৌম্বকীয় ক্ষেত্র এবং রেডিও তরঙ্গের সংমিশ্রণ ব্যবহার করে মেরুদণ্ডের সফট টিস্যুর বিশদ চিত্র তৈরি করে, যার মধ্যে স্পাইনাল কর্ড এবং ডিস্ক ও রয়েছে। এটি পিএল আইডি বা ডিস্ক হার্নিয়েশন সনাক্ত করার জন্য সবচেয়ে সুনির্দিষ্ট ইমেজিং কৌশল হিসাবে ব্যাপকভাবে বিবেচিত হয়।

কম্পিউটেড টমোগ্রাফি (CT) স্ক্যান: সিটি স্ক্যান মেরুদণ্ডের বিশদ চিত্র তৈরি করতে ব্যবহৃত হয়। এই পরীক্ষার মাধ্যমে এক্স-রে থেকেও আরও বিস্তর ধারণা পাওয়া যায় এবং হার্নিয়েটেড ডিস্কের অবস্থান এবং ব্যাপ্তি সনাক্ত করতে সহায়তা করতে পারে।

মাইলোগ্রাম: একটি মায়লোগ্রামে এক্স-রে বা সিটি স্ক্যানের ছবিতে স্নায়ু এবং ডিস্কগুলিকে আরও দৃশ্যমান করার জন্য স্পাইনাল ক্যানেলে একটি কনট্রাস্ট ডাই ইনজেক্ট করা হয়। এটি কখনও কখনও ব্যবহৃত হয় যখন অন্যান্য ইমেজিং পরীক্ষাগুলি রোগ নির্ণয়ে ব্যর্থ হয়।

ইলেক্ট্রোমাইয়োগ্রাফি (EMG): ইএমজি হল একটি ডায়াগনস্টিক পরীক্ষা যা পেশী এবং স্নায়ুর বৈদ্যুতিক কার্যকলাপ পরিমাপ করে। এটি একটি হার্নিয়েটেড ডিস্ক দ্বারা সৃষ্ট স্নায়ুর ক্ষতি আছে কিনা তা নির্ধারণ করতে সাহায্য করতে পারে।

আরও পড়ুন: ডিস্ক প্রলাপ্স বা স্লিপ ডিস্ক হলে কি করবেন?

ASPC ম্যানিপুলেশন সেন্টারে ডিস্ক হার্নিয়েশনের চিকিৎসা পদ্ধতি নিয়ে আলোচনা করা যাক

টিস্যু ম্যানিপুলেশন

সফট এবং ডীপ টিস্যু ম্যানিপুলেশন হল ফিজিওথেরাপি চিকিৎসার টেকনিক গুলোর একটি ধরণ যা কোমড়ের ডিস্ক হার্নিয়েশনজনিত ব্যথা কমাতে সাহায্য করে। সফট টিস্যু ম্যানিপুলেশন আক্রান্ত স্থানের পেশী, টেন্ডন এবং লিগামেন্টগুলিতে বিভিন্ন কৌশলে চাপ প্রয়োগ করা হয়। এটি পেশীর টেনশন কমাতে  এবং রক্ত সঞ্চালন উন্নত করতে সাহায্য করে, যা ব্যথা কমায় এবং রোগ নিরাময় করে। ASPC ম্যানিপুলেশন সেন্টারে, আমাদের ফিজিওথেরাপিস্টরা মায়োফেসিয়াল রিলিজ এবং ট্রিগার পয়েন্ট থেরাপি সহ বিভিন্ন সফট টিস্যু ম্যানিপুলেশন কৌশলগুলিতে প্রশিক্ষিত। তারা রোগের লক্ষণের উপর ভিত্তি করে একটি চিকিৎসা পরিকল্পনা তৈরি করে এবং এতে সফট টিস্যু ম্যানিপুলেশন, ব্যায়াম এবং অন্যান্য থেরাপি অন্তর্ভুক্ত থাকে। লক্ষ্য হল ব্যথা উপশম করা এবং রোগীকে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব স্বাভাবিক কার্যক্ষমতা ফিরে পেতে সহায়তা করা।

মোবিলাইজেশন

জয়েন্ট মোবিলাইজেশন হল এক ধরনের ম্যানুয়াল থেরাপি কৌশল যা ফিজিওথেরাপিস্টরা ডিস্ক হার্নিয়েশন সহ বিভিন্ন মাস্কুলোস্কেলিটাল রোগের চিকিৎসার জন্য ব্যবহার করেন। জয়েন্ট মোবিলাইজেশনে ব্যথা কমাতে, জয়েন্টের মুভমেন্ট  উন্নত করতে এবং জয়েন্টের কার্যকারিতা পুনরুদ্ধার করতে নিয়ন্ত্রিত পদ্ধতিতে বিভিন্ন মুভমেন্ট এর মাধ্যমে জয়েন্টের উপর চাপ প্রয়োগ করা হয়। কোমোড়ের ডিস্ক হার্নিয়েশনের ক্ষেত্রে, স্টিফনেস কমাতে, জয়েন্টের মুভমেন্ট পুনরুদ্ধার করতে এবং ব্যথা উপশম করতে আক্রান্ত কশেরুকাতে জয়েন্ট মোবিলাইজেশন কৌশল প্রয়োগ করা হয়। হার্নিয়েশনের মাত্রা এবং রোগীর সহনশীলতার উপর নির্ভর করে ফিজিওথেরাপিস্ট বিভিন্ন মাত্রার বল প্রয়োগ করেন। জয়েন্ট মোবিলাইজেশনের লক্ষ্য হল ক্ষতিগ্রস্ত কশেরুকা এবং আশেপাশের টিস্যুর মুভমেন্ট উন্নত করা, আক্রান্ত ডিস্কের উপর চাপ কমানো এবং রোগ্মুক্ত করা।

স্ট্রেচিং কৌশল

ASPC ম্যানিপুলেশন সেন্টারে আমাদের এক্সপার্টগণ কোমড়ের ডিস্ক হার্নিয়েশনের মাত্রা কমানোর জন্য স্ট্রেচিং কৌশল প্রয়োগ করে থাকেন। এই কৌশলগুলি আক্রান্ত ডিস্কের উপর চাপ কমায়, প্রদাহ কমায় এবং নমনীয়তা এবং গতির পরিসর উন্নত করে থাকে।

হাঁটুকে বুক পর্যন্ত লাগানো: একটি জনপ্রিয় স্ট্রেচিং ব্যায়াম যা কোমড়ের ডিস্ক হার্নিয়েশনে আক্রান্ত ব্যক্তিদের জন্য সহায়ক হতে পারে। প্রথমে চিৎ হয়ে শুয়ে দুই হাটু ভাজ অবস্থায় পা মাটিতে রাখুন, তারপর এক হাটু হাত দিয়ে ধরে আপনার বুকের দিকে টেনে আনুন। এই স্ট্রেচটি কোমড়ের নিচের দিকের টান কমাতে এবং নিতম্ব এবং নিতম্বের পেশীগুলিকে প্রসারিত করতে সাহায্য করে।

হ্যামস্ট্রিং স্ট্রেচ: হ্যামস্ট্রিং স্ট্রেচ হল আরেকটি সাধারণ ব্যায়াম যা কোমড়ের ডিস্ক হার্নিয়েশনে আক্রান্ত ব্যক্তিদের জন্য অনেক উপকারী। এই স্ট্রেচিং পদ্ধতিতে আপনাকে দুই হাটু ভাজ অবস্থায় চিৎ হয়ে শুতে হবে। তারপর এক হাটুর পিছনের দিকে হাত রেখে ধরে সেই পা টি উপরের দিকে সোজা করতে হবে। এর মাধ্যমে পায়ের রানের পিছনের দিকের পেশীতে টান অনুভূত হবে। এই স্ট্রেচ হ্যামস্ট্রিংয়ের নমনীয়তা বাড়াতে এবং কোমরের চাপ কমাতে সাহায্য করে।

পিরিফর্মিস স্ট্রেচিং: পিরিফর্মিস স্ট্রেচিং কোমড়ের ডিস্ক হার্নিয়েশনে আক্রান্ত ব্যক্তিদের জন্য খুব কার্যকর। এই স্ট্রেচিং পদ্ধতিতে প্রথমে হাটু ভাজ অবস্থায় চিত হয়ে শুতে হবে। এক হাটুর গোড়ালির অংশ ক্রস করে অন্য হাটুর উপর রেখে রানের পিছনের দিকে হাত দিয়ে বুকের দিকে টেনে আনতে হবে। এই স্ট্রেচিং সায়াটিক স্নায়ুর চাপ উপশম করতে এবং কোমড় ও নিতম্বের ব্যথা কমাতে সাহায্য করে।

ক্যাটকাও স্ট্রেচ এবং বেবি পোজ স্ট্রেচ: ক্যাট-কাও স্ট্রেচ এবং বেবি পোজ স্ট্রেচ নমনীয়তা উন্নত করতে এবং কোমড় ব্যথা এবং স্টিফনেস কমাতেও সহায়ক। এই স্ট্রেচগুলির মধ্যে মেরুদণ্ডকে বিভিন্ন রেঞ্জ অব মোশানের মাধ্যমে নড়াচড়া করানো এবং কোমড় এবং নিতম্বের পেশীগুলিকে স্ট্রেচ করা হয়।

ম্যানিপুলেশন

ম্যানিপুলেটিভ ট্রিটমেন্ট হল ম্যানুয়াল থেরাপির একটি ধরণ যা ASPC ম্যানিপুলেশন সেন্টারে কোমড়ের ডিস্ক হার্নিয়েশান রোগীদের জন্য প্রদান করা হয়। এই চিকিৎসা পদ্ধতির মাধ্যমে মেরুদণ্ড এবং শরীরের অন্যান্য জয়েন্টগুলিকে পরিচালনা করার জন্য অত্যন্ত দক্ষতার সাথে ম্যানিপুলেট করা হয়। ম্যানিপুলেটিভ ট্রিটমেন্টের লক্ষ্য হল জয়েন্টের মুভমেন্ট পুনরুদ্ধার করা, ব্যথা উপশম করা এবং কোমড়ের ডিস্ক হার্নিয়েশান রোগীদের সামগ্রিক কার্যকারিতা উন্নত করা।

ম্যানিপুলেটিভ ট্রিটমেন্ট টেকনিক রোগের মাত্রার উপর নির্ভর করে পরিবর্তিত হতে পারে। এটি স্পাইনাল ম্যানিপুলেশন, যা স্পাইনাল অ্যাডজাস্টমেন্ট নামেও পরিচিত। এই কৌশলটিতে আক্রান্ত জয়েন্টে একটি নিয়ন্ত্রিতভাবে চাপ প্রয়োগ করা হয় যাতে তার স্বাভাবিক মুভমেন্ট পুনরুদ্ধার করতে সাহায্য করে। অন্যান্য ম্যানুয়াল থেরাপি কৌশল যা কোমরের ডিস্ক হার্নিয়েশনের জন্য ম্যানিপুলেটিভ ট্রিটমেন্টের ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়ে থাকে তার মধ্যে রয়েছে মোবিলাইজেশন, সফট টিস্যু ম্যানিপুলেশন এবং স্ট্রেচিং ব্যায়াম। এই কৌশলগুলির লক্ষ্য আক্রান্ত জয়েন্টের চারপাশের পেশী এবং সফট টিস্যুতে টান কমানো, রোগ নিরাময় করা  এবং সামগ্রিক নমনীয়তা এবং গতির পরিসর উন্নত করা। কোমড়ের ডিস্ক হার্নিয়েশনের চিকিৎসার ক্ষেত্রে ম্যানিপুলেটিভ ট্রিটমেন্টকে নিরাপদ এবং কার্যকর বলে মনে করা হয়। আপনার সুস্থতার জন্য সর্বোত্তম চিকিৎসা পদ্ধতি নির্ধারণ করতে এবং যে কোনও ম্যানিপুলেটিভ ট্রিটমেন্ট কৌশল নিরাপদে এবং কার্যকরভাবে সম্পাদন নিশ্চিত করতে একজন ফিজিওথেরাপি বিশেষজ্ঞের সাথে পরামর্শ করা গুরুত্বপূর্ণ।

গরম এবং ঠান্ডা প্রয়োগ

কোমড়ের ডিস্ক হার্নিয়েশন রোগীদের জন্য গরম এবং ঠান্ডা থেরাপি একটি কার্যকর চিকিত্সা পদ্ধতি হতে পারে। এএসপিসি ম্যানিপুলেশন সেন্টারে, গরম এবং ঠান্ডা থেরাপি চিকিৎসা পরিকল্পনার অংশ হিসাবে ব্যথা উপশম করতে, প্রদাহ কমাতে এবং কোমড়ের ডিস্ক হার্নিয়েশনের রোগীদের সামগ্রিক কার্যকারিতা উন্নত করতে সহায়তা করে।

কোল্ড থেরাপি, যা ক্রায়োথেরাপি নামেও পরিচিত, এতে আক্রান্ত স্থানে কোল্ড কম্প্রেস বা আইস প্যাক প্রয়োগ করা হয়। এই কৌশলটি প্রদাহ এবং ফোলা কমাতে সাহায্য করে, যা কোমড়ের ডিস্ক হার্নিয়েশনের সাথে যুক্ত ব্যথা এবং অস্বস্তি কমাতে সাহায্য করে। কোল্ড থেরাপি সাধারণত অল্প সময়ের জন্য প্রয়োগ করা হয়, যেমন একটানা 10-15 মিনিট, দিনে কয়েকবার।

হিট থেরাপি, যা থার্মোথেরাপি নামেও পরিচিত, এতে আক্রান্ত অংশে তাপ প্রয়োগ করা হয়। এই কৌশলটি আক্রান্ত অংশে রক্ত ​​প্রবাহ বাড়াতে সাহায্য করে, যা ব্যথা কমাতে সাহায্য করে। হিট থেরাপি বিভিন্ন উপায়ে প্রয়োগ করা যেতে পারে, যেমন হিটিং প্যাড বা গরম জলের বোতল এর মাধ্যমে তাপ দেয়া। এটি লক্ষ করা গুরুত্বপূর্ণ যে হিট থেরাপি সতর্কতার সাথে ব্যবহার করা উচিত এবং দীর্ঘ সময়ের জন্য প্রয়োগ করা উচিত নয়, কারণ এটি আক্রান্ত ডিস্কের ক্ষতি হবার ঝুঁকি বাড়িয়ে তুলতে পারে।

মাংশপেশীর শক্তি বাড়ানো

ASPC ম্যানিপুলেশন সেন্টারে, পেশী শক্তিশালীকরণ ব্যায়ামগুলি প্রায়ই কোমড়ের ডিস্ক হার্নিয়েশান রোগীদের চিকিত্সা পরিকল্পনায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়। শক্তিশালী পেশীগুলি মেরুদণ্ডের সাপোর্টের জন্য বেশ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে এবং ব্যথামুক্ত থাকতে ও সামগ্রিক কার্যকারিতা উন্নত করতে সহায়তা করে।

পেশী শক্তিশালীকরণ ব্যায়াম অত্যন্ত সতর্কতার সাথে করা উচিৎ এবং কেবলমাত্র কোর স্ট্যাবিলিটি মেইন্টেইন করে পেশি শক্তিশালীকরণ ব্যায়াম শুরু করা উচিৎ। সামগ্রিক কার্যকারিতা উন্নত করতে এবং ভবিষ্যতে ডিস্ক প্রোল্যাপ্সের ঝুঁকি কমাতে পেশী শক্তিশালীকরণ ব্যায়াম ধীরে ধীরে করা যেতে পারে।

ASPC ম্যানিপুলেশন সেন্টারে প্রয়োগকৃত নির্দিষ্ট পেশী শক্তিশালীকরণ ব্যায়াম রোগীর ধরণ এবং রোগের মাত্রার উপর নির্ভর করে পরিবর্তিত হতে পারে। কোমড়ের ডিস্ক হার্নিয়েশনের জন্য পেশী শক্তিশালীকরণ প্রোগ্রামে অন্তর্ভুক্ত করা হয়ে থাকে এমন ব্যায়ামের উদাহরণগুলির মধ্যে রয়েছে স্কোয়াট, লাঞ্জেস এবং লেগ প্রেস।

সামগ্রিকভাবে, পেশী শক্তিশালীকরণ ব্যায়াম মেরুদন্ডকে সাপোর্ট দেয়া এবং কোমড়ের ডিস্ক হার্নিয়েশন রোগীদের সামগ্রিক কার্যকারিতা উন্নত করার একটি কার্যকর উপায় হতে পারে।

সুতরাং, এএসপিসি ম্যানিপুলেশন সেন্টারে পিএলআইডি (প্রল্যাপসড লাম্বার ইন্টারভার্টেব্রাল ডিস্ক) বা ডিস্ক হার্নিয়েশনের জন্য সর্বোত্তম চিকিৎসা পেতে যোগাযোগ করতে পারেন। পিএলাইডি চিকিৎসায় ঔষধের পাশাপাশি ফিজিওথেরাপী ও লাইফস্টাইল মডিফিকেশনও খুব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। যেসব ক্ষেত্রে গতানুগতিক চিকিৎসা আশানুরুপ ফলাফল পেতে ব্যর্থ হয় বা যদি স্নায়বিক জটিলতা দেখা দেয়, সেক্ষেত্রে অস্ত্রোপচার করা লাগতে পারে যেমন স্পাইনাল ডিকম্প্রেশন বা স্পাইনাল ফিউশন করা যেতে পারে। রিউমাটোলজিস্ট, অর্থোপেডিক সার্জন এবং ফিজিওথেরাপি চিকিৎসক সহ স্বাস্থ্যসেবা পেশাদারদের মধ্যে মতবিনিময়ের মাধ্যমে রোগীর জন্য সবচেয়ে কার্যকরি এবং দীর্ঘমেয়াদী চিকিৎসা তরান্বিত করা সম্ভব।

প্রায়শই জিজ্ঞাসিত প্রশ্নাবলী

  1. পিএলআইডি/ডিস্ক হার্নিয়েশন কী?

    পিএলআইডি (প্রল্যাপসড লাম্বার ইন্টারভার্টিব্রাল ডিস্ক) বা ডিস্ক হার্নিয়েশন হল একটি মেরুদণ্ডের সমস্যা যেখানে একটি ইন্টারভারটেব্রাল ডিস্কের নরম, জেলীর মতো অংশটি ফুলে যায় বা ফেটে যায়, যার ফলে সংলগ্ন স্নায়ু এবং মেরুদণ্ডের উপর চাপ পড়ে, যার ফলে ব্যথা এবং অস্বস্তি হয়।

  2. অগ্রণী স্পেশালাইজড ফিজিওথেরাপি অ্যান্ড ম্যানিপুলেশন সেন্টারে পিএলআইডি/ডিস্ক হার্নিয়েশনের জন্য কী কী চিকিৎসা দেওয়া হয়?

    অগ্রণী সেন্টার ম্যানুয়াল থেরাপি, স্পাইনাল ম্যানিপুলেশন, থেরাপিউটিক এক্সেরসাইজ, পশ্চার সংশোধন, ইলেক্ট্রোথেরাপি এবং আর্গোনোমিক পরামর্শ সহ ডিস্ক হার্নিয়েশনের চিকিত্সার জন্য একটি পূর্নাংগ চিকিৎসা নিশ্চিত করে।

  3. কিভাবে ম্যানুয়াল থেরাপি পিএলআইডি/ডিস্ক হার্নিয়েশনের চিকিৎসায় সাহায্য করে?

    ম্যানুয়াল থেরাপির মধ্যে সফট টিস্যু এবং জয়েন্টগুলিকে মবিলাইজ এবং ম্যানিপুলেট করা হয় যার লক্ষ্য ব্যথা কমানো, রেঞ্জ অব মোশান উন্নত করা এবং সামগ্রিক কার্যকারিতা অব্যাহত রাখা।

  4. স্পাইনাল ম্যানিপুলেশন কী এবং ডিস্ক হার্নিয়েশনের চিকিৎসায় এটি কীভাবে সহায়ক?

    স্পাইনাল ম্যানিপুলেশন হল একটি ম্যানুয়াল টেকনিক যেখানে অভিজ্ঞ থেরাপিস্ট মেরুদন্ডের জয়েন্টে নিয়ন্ত্রিতভাবে, চাপ প্রয়োগ করে, যার লক্ষ্য স্বাভাবিক রেঞ্জ অব মোশান উন্নতি করা, স্নায়ুর উপর চাপ কমানো এবং ব্যথা কমানো।

  5. অগ্রণী স্পেশালাইজড ফিজিওথেরাপি ও ম্যানিপুলেশন সেন্টারে চিকিৎসা শুরু করার পর পিএলআইডি/ডিস্ক হার্নিয়েশনের উন্নতি ঘটতে কতদিন সময় লাগতে পারে?

    চিকিৎসা সময়কাল এবং সুস্থ হবার সময়কাল রোগের তীব্রতা, রোগীর সামগ্রিক স্বাস্থ্য এবং নির্ধারিত চিকিৎসা পরিকল্পনা মেনে চলার উপর নির্ভর করে পরিবর্তিত হয়। অনেক রোগী চিকিৎসা শুরু করার কয়েক সপ্তাহের মধ্যে স্বস্তি এবং উন্নতি অনুভব করতে শুরু করে।

  6. অগ্রণী স্পেশালাইজড ফিজিওথেরাপি ও ম্যানিপুলেশন সেন্টারে প্রদত্ত চিকিৎসা ব্যবস্থার কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া বা ঝুঁকি আছে কি?

    অগ্রণী স্পেশালাইজড ফিজিওথেরাপি ও সেন্টারে প্রদত্ত চিকিৎসা যথেষ্ট নিরাপদ। কিছু রোগী ম্যানুয়াল থেরাপি বা স্পাইনাল ম্যানিপুলেশন সেশনের পরে সাময়িক অস্বস্তি বা হালকা ব্যথা অনুভব করতে পারে। উপযুক্ত সতর্কতা অবলম্বন করার নিমিত্তে কোনও অস্বস্তি বা পূর্ব-বিদ্যমান কোন রোগের ব্যাপারে থেরাপিস্টকে অবহিত করা অপরিহার্য।

  7. আমার কি অনির্দিষ্টকালের জন্য পিএলআইডি/ডিস্ক হার্নিয়েশনের জন্য চিকিৎসা চালিয়ে যেতে হবে?

    অগ্রণী স্পেশালাইজড ফিজিওথেরাপি ও ম্যানিপুলেশন সেন্টারে চিকিৎসার লক্ষ্য হল দীর্ঘস্থায়ী পরিত্রাণ প্রদান এবং কার্যকারিতা উন্নত করা। একবার আপনি উল্লেখযোগ্য উন্নতি অর্জন করলে, থেরাপিস্ট আপনাকে বাসায় নিজে করার জন্য ব্যায়াম শিখিয়ে দিবেন এবং লাইফস্টাইল পরিবর্তনের মাধ্যমে আপনার অগ্রগতি বজায় রাখতে হবে সে সম্পর্কে গাইড করবেন।

  8. অগ্রণী স্পেশালাইজড ফিজিওথেরাপি অ্যান্ড ম্যানিপুলেশন সেন্টারে চিকিৎসা নেওয়ার জন্য কি আমার ডাক্তারের কাছ থেকে রেফারেল প্রয়োজন?

    কোন নতুন চিকিৎসা শুরু করার আগে আপনার প্রাথমিক পর্যায়ে চিকিৎসকের সাথে পরামর্শ করা উচিৎ। অগ্রণী স্পেশালাইজড ফিজিওথেরাপি ও ম্যানিপুলেশন সেন্টারে চিকিৎসা গ্রহণের জন্য সাধারণত রেফারেলের প্রয়োজন হয় না। আপনি আমাদের নির্দিষ্ট রেফারেল এবং অ্যাপয়েন্টমেন্ট এর নিয়ম সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করতে সরাসরি কেন্দ্রের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন।

  9. অগ্রণী স্পেশালাইজড ফিজিওথেরাপি অ্যান্ড ম্যানিপুলেশন সেন্টারে আমি কীভাবে অ্যাপয়েন্টমেন্ট নির্ধারণ করব?

    অ্যাপয়েন্টমেন্টের সময় নির্ধারণ করতে, আপনি ফোনের মাধ্যমে আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন বা অনলাইনে অ্যাপয়েন্টমেন্ট পেতে আমাদের ওয়েবসাইটে যেতে পারেন। আপনার ব্যক্তিগত বিবরণ এবং আপনার রোগের একটি সংক্ষিপ্ত বিবরণ প্রদান করুন এবং সেন্টার থেকে আমাদের প্রতিনিধি আপনার অ্যাপয়েন্টমেন্ট নিশ্চিত করতে আপনার সাথে যোগাযোগ করবেন। যোগাযোগের ঠিকানাঃ ইউ ৬৪, নুরজাহান রোড, মোহাম্মদপুর ঢাকা। ফোন নম্বরঃ ০১৯৭৫৪৫১৫২৫। ই-মেইলঃ aspc.dhaka@gmail.com। রোগী দেখার সময়, সকাল ৯টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত। শুক্রবার ছাড়া সপ্তাহের বাকিদিনগুলোতে রোগী দেখা হয়। গরিব ও অসহায় রোগীদের জন্য স্বল্পমূল্যের আউটডোর সেবার ব্যবস্থা রয়েছে। আমাদের এখানে রোগী ভাল হবার শতকরা হার প্রায় ৮৫ ভাগ।

তথ্যসূত্রঃ

  1. Kreiner, D.S., Hwang, S.W., Easa, J.E., Resnick, D.K., Baisden, J.L., Bess, S., Cho, C.H., DePalma, M.J., Dougherty II, P., Fernand, R. and Ghiselli, G., 2014. An evidence-based clinical guideline for the diagnosis and treatment of lumbar disc herniation with radiculopathy. The Spine Journal, 14(1), pp.180-191 https://www.sciencedirect.com/science/article/pii/S1529943013014502
  2. Chou, R., Qaseem, A., Snow, V., Casey, D., Cross Jr, J.T., Shekelle, P., Owens, D.K. and Clinical Efficacy Assessment Subcommittee of the American College of Physicians and the American College of Physicians/American Pain Society Low Back Pain Guidelines Panel*, 2007. Diagnosis and treatment of low back pain: a joint clinical practice guideline from the American College of Physicians and the American Pain Society. Annals of internal medicine, 147(7), pp.478-491. \ https://www.acpjournals.org/doi/abs/10.7326/0003-4819-147-7-200710020-00006
  3. Hahne, A.J., Ford, J.J. and McMeeken, J.M., 2010. Conservative management of lumbar disc herniation with associated radiculopathy: a systematic review. Spine, 35(11), pp.E488-E504. https://journals.lww.com/spinejournal/Fulltext/2010/05150/Acupuncture_for_Neck_Disorders.23.aspx
  4. Koes, B.W., Van Tulder, M.W. and Peul, W.C., 2007. Diagnosis and treatment of sciatica. Bmj, 334(7607), pp.1313-1317. https://www.bmj.com/content/334/7607/1313?flh=
  5. Macedo, L.G., Maher, C.G., Latimer, J. and McAuley, J.H., 2009. Motor control exercise for persistent, nonspecific low back pain: a systematic review. Physical therapy, 89(1), pp.9-25. https://academic.oup.com/ptj/article-abstract/89/1/9/2737552
  6. Maher, C., Underwood, M. and Buchbinder, R., 2017. Non-specific low back pain. The Lancet, 389(10070), pp.736-747. https://www.sciencedirect.com/science/article/pii/S0140673616309709
  7. Oliveira, C.B., Maher, C.G., Pinto, R.Z., Traeger, A.C., Lin, C.W.C., Chenot, J.F., van Tulder, M. and Koes, B.W., 2018. Clinical practice guidelines for the management of non-specific low back pain in primary care: an updated overview. European Spine Journal, 27, pp.2791-2803. https://link.springer.com/article/10.1007/s00586-018-5673-2
  8. Peul, W.C., Van Houwelingen, H.C., van den Hout, W.B., Brand, R., Eekhof, J.A., Tans, J.T., Thomeer, R.T. and Koes, B.W., 2007. Surgery versus prolonged conservative treatment for sciatica. New England Journal of Medicine, 356(22), pp.2245-2256. https://www.nejm.org/doi/full/10.1056/NEJMoa064039
  9. Choi, B.K., Verbeek, J.H., Wai‐San Tam, W. and Jiang, J.Y., 2010. Exercises for prevention of recurrences of low‐back pain. Cochrane Database of Systematic Reviews, (1). https://www.cochranelibrary.com/cdsr/doi/10.1002/14651858.CD006555.pub2/abstract
  10. Delitto, A., George, S.Z., Van Dillen, L., Whitman, J.M., Sowa, G., Shekelle, P., Denninger, T.R., Godges, J.J., Beneciuk, J.M., Bishop, M.D. and Kramer, C.D., 2012. Low back pain: clinical practice guidelines linked to the International Classification of Functioning, Disability, and Health from the Orthopaedic Section of the American Physical Therapy Association. Journal of orthopaedic & sports physical therapy, 42(4), pp.A1-A57. https://www.jospt.org/doi/abs/10.2519/jospt.2012.42.4.a1
  11. Hahne, A.J., Ford, J.J. and McMeeken, J.M., 2010. Conservative management of lumbar disc herniation with associated radiculopathy: a systematic review. Spine, 35(11), pp.E488-E504. https://journals.lww.com/spinejournal/Fulltext/2010/05150/Acupuncture_for_Neck_Disorders.23.aspx
  12. Shapovalov, V.S., Bystrytska, M.A., Dedukh, N.V. and Balyk, O.I., 2021. Modic changes in the lumbar spine: histology, risk factors, clinical presentation and treatment. PAIN, JOINTS, SPINE, 11(2), pp.86-95 https://pjs.zaslavsky.com.ua/index.php/journal/article/view/301
  13. Koes, B.W., Van Tulder, M.W. and Peul, W.C., 2007. Diagnosis and treatment of sciatica. Bmj, 334(7607), pp.1313-1317. https://www.bmj.com/content/334/7607/1313?flh=
  14. O’Connell, N.E., Cook, C.E., Wand, B.M. and Ward, S.P., 2016. Clinical guidelines for low back pain: a critical review of consensus and inconsistencies across three major guidelines. Best practice & research Clinical rheumatology, 30(6), pp.968-980. https://www.sciencedirect.com/science/article/pii/S1521694217300049
  15. Rubinstein, S.M., van Middelkoop, M., Assendelft, W.J., de Boer, M.R. and van Tulder, M.W., 2011. Spinal manipulative therapy for chronic low-back pain: an update of a Cochrane review. Spine, 36(13), pp.E825-E846. https://journals.lww.com/spinejournal/fulltext/2011/06010/Spinal_Manipulative_Therapy_for_Chronic_Low_Back.16.aspx
  16. Pergolizzi, J.V. and LeQuang, J.A., 2020. Rehabilitation for low back pain: A narrative review for managing pain and improving function in acute and chronic conditions. Pain and therapy, 9, pp.83-96. https://link.springer.com/article/10.1007/s40122-020-00149-5
  17. Van Middelkoop, M., Rubinstein, S.M., Verhagen, A.P., Ostelo, R.W., Koes, B.W. and van Tulder, M.W., 2010. Exercise therapy for chronic nonspecific low-back pain. Best practice & research Clinical rheumatology, 24(2), pp.193-204. https://www.sciencedirect.com/science/article/pii/S1521694210000033
Follow me

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This field is required.

This field is required.

পরামর্শ নিতে 01975451525