অ্যাভাসকুলার নেক্রোসিস

অ্যাভাসকুলার নেক্রোসিস কি?

অ্যাভাসকুলার নেক্রোসিস হচ্ছে হাড়ের টিস্যুর ক্ষয়, যা রক্ত সরবরাহের বিঘ্ন ঘটার ফলে সৃষ্টি হয়। এই রোগটি অস্টিওনেক্রোসিস নামেও পরিচিত, হাড়ের ছোট ছোট ফ্র্যাকচার সৃষ্টি করে এবং অবশেষে হাড়ের ভাঙ্গন ঘটায়। হাড়ের একটি বিশেষ অংশের রক্ত প্রবাহ হাড় ভেঙ্গে গেলে বা জয়েন্টের ডিজলোকেশনের কারণে বিঘ্নিত হতে পারে। এই রোগের সাথে দীর্ঘমেয়াদি অতি মাত্রায় স্টেরয়েড ব্যবহার এবং অতিরিক্ত অ্যালকোহল সেবনের সম্পর্ক রয়েছে। অ্যাভাসকুলার নেক্রোসিস সাধারণত ৩০ থেকে ৫০ বছর বয়সী ব্যক্তিদের মধ্যে দেখা যায়, যদিও এটি যেকোন বয়সেই হতে পারে।

অ্যাভাসকুলার নেক্রোসিস রোগের কারণ?

অ্যাভাসকুলার নেক্রোসিস (AVN) বা অস্টিওনেক্রোসিস একটি রোগ যেটিতে আক্রান্ত হলে হাড়ের টিস্যু রক্ত প্রবাহের অভাবে মারা যায়। এই রোগ হবার পেছনে নানা কারণ রয়েছে যা এটিতে আক্রান্ত হবার  সম্ভাবনা বাড়িয়ে তোলে। নিম্নলিখিত বিস্তারিত বিবেচনা করুন:

  • অ্যালকোহলের প্রভাব: প্রতিদিন বেশি পরিমাণে অ্যালকোহল গ্রহণ করলে এটি রক্তে চর্বি জমার কারণ হতে পারে, যা হাড়ের রক্ত সরবরাহ কমিয়ে দিতে পারে। এই অভ্যাস রক্তনালীগুলির কার্যকারিতা বাধা দেয় এবং অবশেষে AVN ঘটাতে পারে।
  • চিকিৎসা ও রেডিয়েশন থেরাপি: ক্যান্সারের রেডিয়েশন থেরাপি হাড়কে দুর্বল করতে পারে এবং অঙ্গ প্রতিস্থাপন যেমন কিডনি প্রতিস্থাপনের প্রক্রিয়া রক্ত প্রবাহে বাধা দিতে পারে, যা অ্যাভাসকুলার নেক্রোসিসের ঝুঁকি বাড়ায়।
  • বিসফোসফোনেটসের ব্যবহার: বিসফোসফোনেটস, যা হাড়ের ঘনত্ব বাড়ানোর জন্য প্রয়োগ করা হয়, কখনও কখনও চোয়ালের অস্টিওনেক্রোসিস ঘটাতে পারে। বিশেষত যারা একাধিক মাইলোমা বা মেটাস্ট্যাটিক স্তন ক্যান্সারের চিকিৎসায় এই ওষুধগুলি নেয় তাদের মধ্যে এই ঝুঁকি বেশি।
  • শারীরিক আঘাত: হিপ ফ্র্যাকচার বা ডিজলোকেশনের মতো শারীরিক আঘাতের ফলে কাছাকাছি রক্তনালীগুলির ক্ষতি করতে পারে, যা হাড়ের রক্ত সরবরাহ বন্ধ করে দিতে পারে। এই ধরনের আঘাত AVN-এর একটি প্রধান কারণ। শতকরা ২০ শতাংশ হিপ জয়েন্টের এভাস্কুলার নেক্রোসিস হিপ ডিজলোকেশন এর ফলে ঘটে থাকে।
  • প্রদাহ ও রক্ত জমাট বাঁধা: প্রদাহ, রক্ত জমাট বাঁধা, এবং ধমনীতে ক্ষতি হাড়ের রক্ত প্রবাহে বাধা দিতে পারে। এই সমস্যাগুলো হাড়ের টিস্যুর মৃত্যুর প্রক্রিয়াকে ত্বরান্বিত করে।
  • স্টেরয়েড ওষুধ: স্টেরয়েড ওষুধের দীর্ঘমেয়াদী ব্যবহার অ্যাভাসকুলার নেক্রোসিসের একটি প্রধান কারণ। শতকরা ৩৫ শতাংস এভাস্কুলার নেক্রোসিস স্টেরয়েডের অনিয়মিত ও মাত্রাতিরিক্ত ব্যবহারের ফলে ঘটে থাকে। এই ওষুধগুলি রক্তে চর্বির মাত্রা বাড়িয়ে দিতে পারে, যা রক্ত প্রবাহে বাধা দেয়।
  • অন্যান্য রোগসমূহ: ননট্রমাটিক অ্যাভাসকুলার নেক্রোসিসের সাথে সম্পর্কিত অন্যান্য ব্যাধিসমূহ যেমন ডিকম্প্রেশন সিকনেস, ডায়াবেটিস, এইচআইভি, প্যানক্রিয়াটাইটিস, অটোইমিউন রোগ (যেমন লুপাস), গাউচার রোগ, এবং সিকেল সেল রোগ অ্যাভাসকুলার নেক্রোসিসের ঝুঁকি বাড়াতে পারে। এই রোগসমূহ রক্তের স্বাভাবিক প্রবাহে বাধা দেয় বা হাড়ের স্বাভাবিক কার্যকারিতাকে বিঘ্নিত করে।

এই কারণগুলি বিবেচনা করে, ঝুঁকি মোকাবেলায় প্রতিকার ও প্রতিরোধের উপায় অবলম্বন করা উচিত। যেমন অ্যালকোহল ও স্টেরয়েড ওষুধের অত্যধিক ব্যবহার এড়ানো, ট্রমা থেকে সুরক্ষা, এবং অবস্থানুযায়ী নির্দিষ্ট চিকিৎসা গ্রহণ করা।

অ্যাভাসকুলার নেক্রোসিস রোগের লক্ষণ?

অ্যাভাসকুলার নেক্রোসিসের প্রারম্ভিক পর্যায়ে অনেক সময় কোনো লক্ষণ প্রকাশ পায় না। রোগের অগ্রগতির সাথে সাথে, যখন আক্রান্ত জয়েন্টে চাপ পড়ে, তখন ব্যথার অনুভূতি হতে পারে। ব্যথা শুয়ে থাকার সময়ও অনুভূত হতে পারে, এবং এর তীব্রতা হালকা থেকে গুরুতর পর্যন্ত হতে পারে। এই ব্যথা ধীরে ধীরে বেড়ে যায় এবং হিপের ক্ষেত্রে ব্যথা কুঁচকি, উরু বা হিপ পর্যন্ত বিস্তৃত হতে পারে। হিপ ছাড়াও কাঁধ, হাঁটু, হাত এবং পায়ে ও এই রোগের প্রভাবে পরতে পারে। মাঝে মাঝে অ্যাভাসকুলার নেক্রোসিস দুই পাশেই হতে পারে, যাকে দ্বিপাক্ষিক অ্যাভাসকুলার নেক্রোসিস বলা হয়। যদি কেউ মনে করেন তাদের কোনো জয়েন্ট আক্রান্ত হয়েছে বা ব্যথা অনুভব করছেন, তাহলে তাদের অবিলম্বে চিকিৎসার জন্য যাওয়া উচিত।

অ্যাভাসকুলার নেক্রোসিস

অ্যাভাসকুলার নেক্রোসিস রোগের প্রতিরোধ?

অ্যাভাসকুলার নেক্রোসিস প্রতিরোধ করতে,আপনি নিম্নলিখিত পদক্ষেপগুলি নিতে পারেনঃ

  • অ্যালকোহল বন্ধ করুনঃ ভারী মদ্যপান অ্যাভাসকুলার নেক্রোসিসের জন্য একটি প্রধান ঝুঁকির কারণ।
  • স্টেরয়েড সাবধানে ব্যবহার করুনঃ বারবার স্টেরয়েড গ্রহণ করলে হাড়ের ক্ষতি হতে পারে।
  • আপনার কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণে রাখুনঃ চর্বির ছোট বিটগুলি সবচেয়ে সাধারণ জিনিস যা আপনার হাড়ের রক্ত ​​সরবরাহকে ব্লক করে।
  • ধূমপান করবেন নাঃ ধূমপান আপনার অ্যাভাসকুলার নেক্রোসিসের ঝুঁকি বাড়ায়।

আরও পড়ুনঃ মিনিস্কাস ইনজুরি

অ্যাভাসকুলার নেক্রোসিস রোগের চিকিৎসা?

অ্যাভাসকুলার নেক্রোসিসের চিকিৎসার প্রধান উদ্দেশ্য জয়েন্টের কার্যকারিতা বৃদ্ধি করা, হাড়ের ক্ষতি রোধ করা, এবং ব্যথার প্রশমন সাধন করা। সর্বোত্তম চিকিত্সা অনেকগুলি বিষয়ের উপর নির্ভর করবে, যেমনঃ

  • বয়স।
  • রোগের পর্যায়।
  • অবস্থান এবং হাড়ের ক্ষতির পরিম।
  • অ্যাভাসকুলার নেক্রোসিসের কারণ।

যদি তাড়াতাড়ি অ্যাভাসকুলার নেক্রোসিস নির্ণয় করা যায়,তাহলে চিকিত্সার মধ্যে ব্যথা উপশম করার জন্য ওষুধ গ্রহণ করা বা প্রভাবিত এলাকার ব্যবহার সীমিত করা অন্তর্ভুক্ত থাকতে পারে।যদি আপনার হিপ, হাঁটু বা গোড়ালি প্রভাবিত হয়,তাহলে ক্ষতিগ্রস্ত জয়েন্ট থেকে ওজন কমানোর জন্য আপনার ক্রাচের প্রয়োজন হতে পারে। জয়েন্ট রাখতে সাহায্য করার জন্য ডাক্তার রেঞ্জ-অফ-মোশন ব্যায়ামটি সুপারিশ করতে পারেন।

১) ওষুধঃ ডাক্তার যদি জানেন যে আপনার অ্যাভাসকুলার নেক্রোসিসের কারণ কী,চিকিৎসার মধ্যে এটি পরিচালনা করার প্রচেষ্টা অন্তর্ভুক্ত থাকবে।এটি অন্তর্ভুক্ত করতে পারেঃ

  • রক্ত পাতলা করেঃ যদি আপনার এভিএন রক্ত ​​জমাট বাঁধার কারণে হয় তবে আপনি এগুলি পাবেন।
  • ননস্টেরয়েডাল অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি ড্রাগসঃ এগুলো ব্যথায় সাহায্য করবে।
  • কোলেস্টেরলের ওষুধঃ আপনার রক্তে কোলেস্টেরল এবং চর্বির পরিমাণ কমিয়ে দেয়,যা অ্যাভাসকুলার নেক্রোসিসের দিকে পরিচালিত বাধাগুলি প্রতিরোধ করতে সাহায্য করতে পারে।

২) সার্জারিঃ যদিও এই ননসার্জিক্যাল চিকিৎসাগুলি অ্যাভাসকুলার নেক্রোসিসকে ধীর করে দিতে পারে,এই অবস্থার বেশিরভাগ লোকের শেষ পর্যন্ত অস্ত্রোপচারের প্রয়োজন হয়। অস্ত্রোপচারের বিকল্পগুলির মধ্যে রয়েছেঃ

  • হাড়ের টিকাঃ শরীরের এক অংশ থেকে সুস্থ হাড় অপসারণ এবং ক্ষতিগ্রস্থ হাড় প্রতিস্থাপন করার জন্য এটি ব্যবহার করা।
  • অস্টিওটমিঃ হাড় কাটা এবং হাড় বা জয়েন্টের উপর চাপ উপশম করার জন্য তার প্রান্তিককরণ পরিবর্তন।
  • টোটাল জয়েন্ট প্রতিস্থাপনঃ ক্ষতিগ্রস্ত জয়েন্ট অপসারণ এবং একটি সিন্থেটিক জয়েন্ট সঙ্গে প্রতিস্থাপন।
  • কোর ডিকম্প্রেশনঃ চাপ উপশম করতে এবং নতুন রক্তনালী তৈরি করতে হাড়ের ভিতরের অংশ অপসারণ করা।
  • ভাস্কুলারাইজড হাড়ের টিকাঃ রোগাক্রান্ত বা ক্ষতিগ্রস্ত হিপ জয়েন্টগুলি পুনর্নির্মাণের জন্য আপনার নিজের টিস্যু ব্যবহার করা।সার্জন প্রথমে নিতম্ব থেকে দুর্বল রক্ত ​​​​সরবরাহ সহ হাড়টি সরিয়ে দেয়,তারপর এটিকে অন্য সাইট থেকে রক্তনালী সমৃদ্ধ হাড় দিয়ে প্রতিস্থাপন করে,যেমন ফাইবুলা,আপনার নীচের পায়ের ছোট হাড়।
  • বৈদ্যুতিক উদ্দীপনাঃ একটি বৈদ্যুতিক প্রবাহ নতুন হাড়ের বৃদ্ধি শুরু করতে পারে। আপনার ডাক্তার অস্ত্রোপচারের সময় এটি ব্যবহার করতে পারে বা এটির জন্য আপনাকে একটি বিশেষ গ্যাজেট দিতে পারে।

অ্যাভাসকুলার নেক্রোসিসের জন্য ফিজিওথেরাপি?

সাধারণত আপনার প্রথম ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা সেশনে জিপি থেকে পরামর্শ দেওয়া হয়, থেরাপিস্ট আপনার ব্যথার স্তরের মূল্যায়ন করবেন এবং জয়েন্টে গতিশীলতার স্তর এবং কাজগুলি সম্পূর্ণ করার ক্ষমতা মূল্যায়ন করবেন। তারপর এই মূল্যায়ন থেকে কার্যকরী লক্ষ্য নির্ধারণ করা হবে।ফিজিওথেরাপিস্ট একবার এটি প্রয়োজনীয় বলে মনে করলে, ক্রাচ বা হুইলচেয়ারের মতো হাঁটার সহায়কগুলি চালু করা হবে।  অবস্থার প্রাথমিক পর্যায়ে ওজন বহনের পরিমাণ হ্রাস করা হাড়ের নিরাময়ের সময়কে অনুমতি দেবে। আপনার ফিজিওথেরাপিস্ট মোবিলাইজেশন করতে পারেন।

এই হাতের কৌশলগুলির জন্য ফিজিওথেরাপিস্টকে ধীরে ধীরে জয়েন্টটিকে তার পরিসরের মধ্য দিয়ে স্থানান্তর করতে হবে যাতে কোনও ফোলা রোধ করা যায় এবং এই অঞ্চলে রক্ত ​​​​সরবরাহকে উৎসাহিত করা যায়।।জয়েন্টগুলির চারপাশের পেশীগুলিকে শক্তিশালী রাখার জন্য একটি শক্তিশালীকরণ প্রোগ্রামের সুপারিশ করা হয়।এটি জয়েন্ট রক্ষা করতে সাহায্য করবে। মৃদু ব্যায়াম রক্তসঞ্চালন বৃদ্ধি এবং নিরাময় প্রচার করতে সাহায্য করবে।

উপরন্তু তাপ প্যাক এলাকায় রক্ত ​​​​প্রবাহ বৃদ্ধি করতে সাহায্য করতে ব্যবহার করা যেতে পারে।বৈদ্যুতিক উদ্দীপনা হাড়ের বৃদ্ধি উন্নত করতে সাহায্য করবে।এই অবস্থায় হাইড্রোথেরাপি কার্যকর কারণ পুলের উত্তাপ এলাকায় রক্ত ​​সরবরাহ বাড়ায় এবং জলের উচ্ছ্বাস নিশ্চিত করে যে কোনও ওজন নেই যা এলাকার চারপাশে ব্যথা বাড়িয়ে তুলতে পারে।যদি একটি জয়েন্ট প্রতিস্থাপন ঘটে থাকে তবে ফিজিওথেরাপিস্ট জয়েন্টে গতির পরিসর পুনরুদ্ধারের উপর ফোকাস করবেন এবং তারপরে প্রোগ্রাম শক্তিশালীকরণ করবেন।যে ক্ষেত্রগুলিকে শক্তিশালী করার জন্য বিশেষভাবে গুরুত্বপূর্ণ তার মধ্যে পিঠ এবং কোর অন্তর্ভুক্ত কারণ তারা নিতম্বের স্থিতিশীলতায় একটি বড় ভূমিকা পালন করে।

অগ্রণী স্পেশালাইড মেনুয়েল ও ম্যানিপুলেটিভ ফিজিওথেরাপি সেন্টারে আপনি অ্যাভাসকুলার নেক্রোসিসের পরিপূর্ণ চিকিৎসা পাবেন।এখানে বিশেষজ্ঞ ফিজিওথেরাপি চিকিৎসক আপনার সমস্যাগুলোকে চিহ্নিত করে চিকিৎসা পরিকল্পনা করবেন,তারপর দক্ষ একদল চিকিৎসক তা প্রয়োগ করবেন।এখানে রয়েছে নিয়মিত চিকিতসার মুল্যায়ন ও প্রয়োজন অনুযায়ী পরিকল্পনা নির্ধারণ,ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা গ্রহণ করলে আপনি অ্যাভাসকুলার নেক্রোসিসের একটি পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ামুক্ত,ব্যথাহীন সচল জীবন যাপন করতে পারবেন।

তথ্যসূত্র

  1. Mont, M.A., Cherian, J.J., Sierra, R.J., Jones, L.C. and Lieberman, J.R., 2015. Nontraumatic Osteonecrosis of the femoral head: where do we stand today?: a ten-year update. JBJS, 97(19), pp.1604-1627. https://journals.lww.com/jbjsjournal/FullText/2015/10070/Nontraumatic_Osteonecrosis_of_the_Femoral_Head_.9.aspx
  2. Hungerford, D.S. and Jones, L.C., 2004. Asymptomatic osteonecrosis: should it be treated?. Clinical Orthopaedics and Related Research (1976-2007), 429, pp.124-130. https://journals.lww.com/corr/Fulltext/2004/12000/Asymptomatic_Osteonecrosis__Should_It_Be_Treated_.19.aspx
Follow me
Oct 26, 2022

সোল্ডার বার্সাইটিস

সোল্ডার বার্সাইটিস. বার্সা হল থলির মতো কাঠামো যেখানে শরীরের বিভিন্ন জয়েন্টের মুভমেন্টের…
পরামর্শ নিতে 01877733322