ফোকাল নিউরোপ্যাথি এক ধরনের পেরিফেরাল নিউরোপ্যাথি। এই রোগটি পেরিফেরাল স্নায়ুগুলিকে আক্রান্ত করে, যা সেই স্নায়ু যা মস্তিষ্ক এবং মেরুদণ্ডের মধ্যে থেকে তথ্যকে শরীরের বাকি অংশে প্রেরণ করে। ফোকাল নিউরোপ্যাথি বিশেষভাবে সমগ্র পেরিফেরাল স্নায়ুতন্ত্রের পরিবর্তে একটি নির্দিষ্ট স্নায়ু বা স্নায়ুর গোষ্ঠীর ক্ষতি বোঝায়। এটি দুর্বলতা, অবসতা, ঝাঁকুনি, ব্যথা এবং শরীরের ক্ষতিগ্রস্থ অংশে সমন্বয়ের মধ্যে অসুবিধা সৃষ্টি করতে পারে। ফোকাল নিউরোপ্যাথি বিভিন্ন কারণে হতে পারে যেমন ডায়াবেটিস, সংক্রমণ বা নির্দিষ্ট ওষুধ। এর চিকিৎসা কারণ এবং লক্ষণগুলির তীব্রতা উপর নির্ভর করে যার মধ্যে  রয়েছে ফিজিওথেরাপি, ওষুধ এবং অপারেশন।

ফোকাল নিউরোপ্যাথির প্রকার

বিভিন্ন ধরণের ফোকাল নিউরোপ্যাথি রয়েছে[1], শরীরের একটি নির্দিষ্ট স্নায়ু বা স্নায়ুর গোষ্ঠীকে আক্রান্ত করে। যেমন:

ক্র্যানিয়াল নিউরোপ্যাথি: এই ধরনের ফোকাল নিউরোপ্যাথি ক্র্যানিয়াল স্নায়ুকে আক্রান্ত করে, যা চোখের নড়াচড়া, মুখের সংবেদন এবং স্বাদের মতো ফাংশন নিয়ন্ত্রণ করে। ক্র্যানিয়াল নিউরোপ্যাথি 12টি ক্র্যানিয়াল স্নায়ুর মধ্যে এক বা একাধিককে স্নায়ুকে আক্রান্ত করতে পারে। লক্ষণগুলির মধ্যে রয়েছে ঘোলা দেখা, চোখের পাতা ঝুলে যাওয়া এবং মুখের নড়াচাড়ায় অসুবিধা হওয়া।

মনোনিউরোপ্যাথি: এই ধরনের ফোকাল নিউরোপ্যাথি একটি একক স্নায়ুকে আক্রান্ত করে, যেমন রেডিয়াল, আলনার, বা পেরোনিয়াল নার্ভ। লক্ষণের মধ্যে রয়েছে দুর্বলতা, অবসতা এবং হাত বা পায়ের বিভিন্ন আক্রান্ত স্থানে ঝিনঝিন অনুভম হওয়া।

একাধিক মনোনোরোপ্যাথি: এই ধরনের ফোকাল নিউরোপ্যাথি একাধিক স্নায়ুকে আক্রান্ত করে, সাধারণত উদ্দীপনায় বা সমন্বয় তৈরী বাধা প্রদান করে। এটি শরীরের একাধিক জায়গায় দুর্বলতা, অবসতা এবং ব্যথা তৈরী করে।

ট্রঙ্কাল নিউরোপ্যাথি: এই ধরনের ফোকাল নিউরোপ্যাথি শরীরের ট্রাঙ্কের স্নায়ুকে আক্রান্ত করে, যেমন থোরাসিক বা লম্বোস্যাক্রাল প্লেক্সাস। লক্ষণের মধ্যে রয়েছে দুর্বলতা, অবসতা এবং কাঁধে ব্যথা, সেইসাথে সমন্বয় এবং ভারসাম্যের অসুবিধা হতে পারে।

অটোনমিক নিউরোপ্যাথি: এই ফোকাল নিউরোপ্যাথি স্নায়ুগুলিকে আক্রান্ত করে যা হজম, রক্তচাপ এবং হৃদস্পন্দনের মতো অনিচ্ছাকৃত কাজগুলিকে নিয়ন্ত্রণ করে। লক্ষণগুলির মধ্যে রয়েছে হজমে অসুবিধা, অসংযম এবং রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে সমস্যা ।

ফোকাল নিউরোপ্যাথির কারণ কী?

ফোকাল নিউরোপ্যাথি বিভিন্ন কারণের[2] কারণে হতে পারে, যার মধ্যে রয়েছে:

ডায়াবেটিস: রক্তে উচ্চ শর্করার মাত্রা সময়ের সাথে সাথে স্নায়ুর ক্ষতি করতে পারে, যা পেরিফেরাল নিউরোপ্যাথি যেমন ফোকাল নিউরোপ্যাথির দিকে ধাবিত হয়। ডায়াবেটিক নিউরোপ্যাথি, ফোকাল নিউরোপ্যাথির সবচেয়ে সাধারণ কারণ।

সংক্রমণ: কিছু সংক্রমণ, যেমন লাইম রোগ, কুষ্ঠ এবং ডিপথেরিয়া, ফোকাল নিউরোপ্যাথির কারণ হতে পারে।

ট্রমা: নির্দিষ্ট স্নায়ুতে আঘাত, যেমন ফ্র্যাকচার বা সরাসরি আঘাতে, ফোকাল নিউরোপ্যাথি হতে পারে।

টিউমার: টিউমার যদি তা একটি নির্দিষ্ট স্নায়ুকে সংকুচিত করে বা আক্রমণ করে তবে এর কারনে ফোকাল নিউরোপ্যাথির হতে পারে।

অটোইমিউন ডিসঅর্ডার: অটোইমিউন ডিসঅর্ডার, যেমন রিউমাটয়েড আর্থ্রাইটিস, লুপাস এবং সারকোইডোসিস ইত্যাদি ফোকাল নিউরোপ্যাথির কারণ হতে পারে।

ওষুধ: কিছু ওষুধ, যেমন কেমোথেরাপির ওষুধ এবং অ্যান্টিবায়োটিক, পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া হিসাবে পেরিফেরাল নিউরোপ্যাথির হতে পারে।

ভিটামিনের ঘাটতি: ভিটামিন বি 12 এবং ফোলেটের ঘাটতিতে পেরিফেরাল নিউরোপ্যাথির হতে পারে।

মেটাবলিক ডিসঅর্ডার: জেনেটিক মেটাবলিক ডিসঅর্ডার, যেমন চারকোট-মেরি-টুথ ডিজিজও ফোকাল নিউরোপ্যাথির কারণ হতে পারে।

এটি লক্ষ করা গুরুত্বপূর্ণ যে কিছু ক্ষেত্রে, ফোকাল নিউরোপ্যাথির কারণ অজানা (ইডিওপ্যাথিক) হতে পারে। সঠিক কারণ নির্ণয় করতে এবং উপযুক্ত চিকিৎসা প্রদানের জন্য একজন ডাক্তারের সঠিক রোগ নির্ণয়, যেমন একজন নিউরোলজিস্টের প্রয়োজন।

কিভাবে ডাক্তার ফোকাল নিউরোপ্যাথি নির্ণয় করবেন?

ফোকাল নিউরোপ্যাথি নির্ণয়ের জন্য ডাক্তাররা বিভিন্ন পদ্ধতি[3] ব্যবহার করেন, যার মধ্যে রয়েছে:

চিকিৎসার ইতিহাস: ডাক্তার রোগী থেকে পূবের চিকিৎসা তথ্য সহ চিকিৎসার ইতিহাস নেবেন। ডাক্তার রোগীর ওষুধ গ্রহণ এবং সাম্প্রতিক আঘাত বা অসুস্থতা সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করতে পারেন।

শারীরিক পরীক্ষা: ডাক্তার রোগীর শক্তি, সংবেদন, প্রতিফলন এবং সমন্বয় মূল্যায়নের জন্য শারীরিক পরীক্ষা করবেন। ডাক্তার রোগীর দৃষ্টি শক্তিও পরীক্ষা করতে পারেন এবং তাদের গিলে ফেলার ক্ষমতাও পরীক্ষা করতে পারেন।

স্নায়ু পরিবাহী অধ্যয়ন: এই পরীক্ষাগুলি স্নায়ুর মধ্য দিয়ে ভ্রমণ করার সময় বৈদ্যুতিক সংকেতগুলির গতি এবং শক্তি পরিমাপ করে। তারা স্নায়ু ক্ষতির অবস্থান এবং মাত্রা নির্ধারণ করতে সাহায্য করতে পারে।

ইলেক্ট্রোমাইগ্রাফি (ইএমজি): এই পরীক্ষাটি পেশীর বৈদ্যুতিক কার্যকলাপ পরিমাপ করে। এটি দুর্বলতার কারণ নির্ধারণে সাহায্য করতে পারে এবং পেশীর ব্যাধি নির্ণয় করতেও ব্যবহার করা যেতে পারে।

ইমেজিং স্টাডিজ: এমআরআই, সিটি স্ক্যান এবং এক্স-রে-এর মতো ইমেজিং অধ্যয়নগুলি ফোকাল নিউরোপ্যাথির কারণও হতে পারে এমন কোনও অন্তর্নিহিত অবস্থা সনাক্ত করতে ব্যবহার করা যেতে পারে।

রক্ত পরীক্ষা: ডায়াবেটিস বা অ্যানিমিয়ার মতো অন্তর্নিহিত চিকিৎসা পরিস্থিতির পরীক্ষা করতে রক্ত পরীক্ষা ব্যবহার করা যেতে পারে, যা ফোকাল নিউরোপ্যাথির কারণ হতে পারে।

বায়োপসি: কিছু ক্ষেত্রে, স্নায়ু টিস্যুর একটি ছোট নমুনা অপসারণ করে তা মাইক্রোস্কোপের নীচে পরীক্ষা করা যেতে পারে ।

এটি লক্ষ করা গুরুত্বপূর্ণ যে ব্যবহৃত নির্দিষ্ট পরীক্ষাগুলি রোগীর লক্ষণ, অন্তর্নিহিত চিকিৎসা অবস্থা এবং ফোকাল নিউরোপ্যাথির সন্দেহজনক কারণের উপর নির্ভর করবে। এই পরীক্ষাগুলি রোগীর চিকিৎসা সঠিকভাবে নির্ণয় এবং গাইড করতে ব্যবহার করা যেতে পারে।

ডাক্তার কিভাবে ফোকাল নিউরোপ্যাথি চিকিৎসা করেন?

ফোকাল নিউরোপ্যাথির চিকিৎসার অন্তর্নিহিত কারণ এবং রোগীর নির্দিষ্ট লক্ষণগুলির উপর নির্ভর করবে[1][2]। কিছু সাধারণ চিকিৎসার মধ্যে রয়েছে:

ওষুধ: ব্যথা উপশমকারী, প্রদাহ-বিরোধী ওষুধ এবং অ্যান্টিডিপ্রেসেন্টের মতো ওষুধগুলি ব্যথা এবং অন্যান্য লক্ষণ কমাতে ব্যবহার করা যেতে পারে। কিছু ওষুধ, যেমন খিঁচুনি বিরোধী ওষুধ, ক্ষতিগ্রস্থ স্নায়ুকে রক্ষা করতে ব্যবহার করা যেতে পারে।

ফিজিওথেরাপি: ফিজিওথেরাপি আক্রান্ত জায়গার শক্তি, সমন্বয় এবং কার্যকারিতা উন্নত করতে সাহায্য করতে পারে। পেশী শক্তি বজায় রাখতে এবং পেশী অপচয় রোধ করতে ব্যায়ামগুলি নির্ধারিত হতে পারে।

সার্জারি: কিছু ক্ষেত্রে, টিউমার অপসারণ বা ক্ষতিগ্রস্ত স্নায়ু ঠিক করার জন্য অস্ত্রোপচারের প্রয়োজন হতে পারে।

অন্তর্নিহিত অবস্থার চিকিৎসা: যদি ফোকাল নিউরোপ্যাথি কোন অন্তর্নিহিত অবস্থার কারণে হয়, তবে সেই অবস্থার চিকিৎসা করা, নিউরোপ্যাথির উন্নতির জন্য প্রয়োজনীয়। উদাহরণস্বরূপ, ডায়াবেটিক নিউরোপ্যাথির ক্ষেত্রে, রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করা আরও স্নায়ুর ক্ষতি প্রতিরোধ করতে এবং লক্ষণগুলিকে কমাতে সাহায্য করতে পারে।

ভিটামিনের পরিপূরক: যেসব ক্ষেত্রে ভিটামিনের অভাবের কারণে নিউরোপ্যাথি হয়, সেখানে সম্পূরক গ্রহণ করা স্নায়ুর কার্যকারিতা উন্নত করতে সাহায্য করতে পারে।

লাইফস্টাইল পরিবর্তন: আপনার জীবনধারা পরিবর্তন করা, যেমন ধূমপান ত্যাগ করা, অ্যালকোহল গ্রহণ সীমিত করা এবং স্বাস্থ্যকর খাদ্য বজায় রাখা, আরও স্নায়ু ক্ষতি প্রতিরোধ করতে এবং সামগ্রিক স্বাস্থ্যের উন্নতি করতে সাহায্য করতে পারে।

ফোকাল নিউরোপ্যাথি হল এক ধরনের পেরিফেরাল নিউরোপ্যাথি যা সমগ্র পেরিফেরাল স্নায়ুতন্ত্রের পরিবর্তে একটি নির্দিষ্ট স্নায়ু বা স্নায়ুর গোষ্ঠীকে আক্রান্ত করে। এটি দুর্বলতা, অবসতা, ঝাঁকুনি, ব্যথা এবং শরীরের আক্রান্ত অংশে সমন্বয় তৈরীতে অসুবিধা সৃষ্টি করতে পারে। ডায়াবেটিস, সংক্রমণ, ট্রমা, টিউমার, ওষুধ এবং ভিটামিনের ঘাটতি সহ বিভিন্ন কারণ ফোকাল নিউরোপ্যাথির হতে পারে। চিকিৎসার মধ্যে রয়েছে ফিজিওথেরাপি, ওষুধ, অস্ত্রোপচার এবং জীবনধারার পরিবর্তনগুলি। সঠিক রোগ নির্ণয় এবং চিকিৎসার জন্য একজন ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করা গুরুত্বপূর্ণ। ফোকাল নিউরোপ্যাথি একজন ব্যক্তির জীবনের মানকে উল্লেখযোগ্যভাবে প্রভাবিত করতে পারে এবং লক্ষণগুলি তীব্রতা কমাতে এবং সামগ্রিক স্বাস্থ্য বজায় রাখতে স্বাস্থ্যসেবা প্রদানকারীদের সাথে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করা গুরুত্বপূর্ণ।

Reference

1. Focal Neuropathy

https://www.boneandjointburden.org/fourth-edition/vibb0/focal-neuropathy

Nov 06, 2022

ট্রিগার ফিঙ্গার

ট্রিগার ফিঙ্গার: ঘুম থেকে উঠে মুঠো করা আঙুলগুলোকে খুলতে গিয়ে দেখলেন, আঙ্গুল…
পরামর্শ নিতে 01975451525